দেশ

বিদেশি রাষ্ট্রদূতরা বাংলাদেশে নিজেদের সম্রাট মনে করেন

যোদ্ধা ডেস্কঃ বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে বিদেশিদের মন্তব্য গণমাধ্যমে অতিপ্রচারের ফলে দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কথা বলে বিদেশীরা মজা পান বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। তিনি বলেন, ঢাকায় কর্মরত বিদেশী রাষ্ট্রদূতরা এদেশে নিজেদের সম্রাট মনে করেন।পৃথিবীর আর কোথাও অ্যাক্টিভিস্ট রাষ্ট্রদূতরা দলবেঁধে মন্তব্য করে বেড়ান না। গতকাল শুক্রবার সিলেট জেলা শিল্পকলা একাডেমি সিলেটের উদ্যোগে নগরের পূর্ব শাহী ঈদগাহস্থ একাডেমি মিলনায়তনে সম্মাননা অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ দরিদ্র দেশ বলে বিদেশীরা এগুলো করছে জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, সম্প্রতি ভারতের পশ্চিমবঙ্গে পঞ্চায়েত নির্বাচনে ৪০ জনের মারা গেছে। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের স্থানীয় নির্বাচনে ওই মৃত্যু নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজন্যসহ একটা দেশও কথা বলেনি। আমাদের দেশে কে কি করলো, সঙ্গে সঙ্গেই চিৎকার শুরু করে দেয় বিদেশী দূতাবাসের রাষ্ট্রদূতরা। এটি দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ের ওপর হস্তক্ষেপ, যা জেনেভা কনভেনশনের ধারে-কাছেও নেই। বাংলাদেশ দরিদ্র দেশ বলে তারা এগুলো করছে, করার সাহস দেখাচ্ছে।

এর আগে শিল্প-সংস্কৃতিতে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ পাঁচজন গুণী ব্যক্তিকে জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা-২০২২ দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন।
জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা প্রাপ্তরা হলেন লোকসংস্কৃতিতে লেখক মিহিরকান্তি চৌধুরী, নাট্যকলায় চম্পক সরকার, সঙ্গীতে কণ্ঠশিল্পী পূর্ণিমা দত্ত রায়, আবৃত্তিতে জ্যোতি ভট্টাচার্য ও যন্ত্রসঙ্গীতে (বাঁশি) মো. মিনু মিয়া।
জেলা প্রশাসক মো. মজিবর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ও সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান। স্বাগত বক্তব্য দেন জেলা কালচারাল অফিসার অসিত বরণ দাশ গুপ্ত। সঞ্চালনা করেন আবৃত্তিশিল্পী রোহেনা সুলতানা।

এমন আরো সংবাদ

এই সংবাদটিও পরতে পারেন
Close
Back to top button