জেলার খবর

সেন্ট মার্টিনে ১০০ কিমি বেগে বাতাস বইছে, কাঁপছে তিনতলা ভবন

mokhaঘূর্ণিঝড় মোখার প্রভাবে সেন্ট মার্টিনে ১০০ কিলোমিটার বেগে বাতাস বইছে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক মো. আজিজুর রহমান। তিনি বলেন,  বৃষ্টি নেই। প্রচণ্ড গতিতে বাতাস বইছে। তবে তিনতলা ভবন কাঁপছে। বেলা ১১টা ৫০ মিনিটে সেখানে বাতাসের গতিবেগ ছিল ৮০ কিলোমিটার, এখন সর্বোচ্চ গতিবেগ ১০০ কিলোমিটার। আজ রোববার (১৪ মে) দুপুরে আবহাওয়া অধিদপ্তরে ঘূর্ণিঝড় মোখা নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

মো. আজিজুর রহমান বলেন, অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় মোখা দুপুর ১২টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ২৮৫ কিমি দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ২০০ কিমি দক্ষিণে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৪৪৫ কিমি দক্ষিণ-দক্ষিণপূর্বে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৩৪৫ কিমি দক্ষিণ-দক্ষিণপূর্বে অবস্থান করছিল।

তিনি আরো বলেন, কক্সবাজার-উত্তর মিয়ানমার উপকূল অতিক্রমরত ঘূর্ণিঝড়টির কেন্দ্র বিকেল ৩টা নাগাদ উপকূল এবং সম্পূর্ণ ঘূর্ণিঝড়টি সন্ধ্যা নাগাদ সিটুয়ের (মিয়ানমার) নিকট দিয়ে কক্সবাজার-উত্তর মিয়ানমার উপকূল অতিক্রম করতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক বলেন, ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৭৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ১৬০ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ১৮০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর খুবই বিক্ষুব্ধ রয়েছে।

তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড় মোখা কক্সবাজার ও উত্তর মিয়ানমার উপকূল অতিক্রম করছে। বিকেল ৩টা নাগাদ বাংলাদেশে ক্রমান্বয়ে দুর্বল হয়ে পড়বে ঘূর্ণিঝড় মোখা, মূল আঘাত হানবে মিয়ানমারে।

এমন আরো সংবাদ

এই সংবাদটিও পরতে পারেন
Close
Back to top button